লক্ষ্মীপুরে ভুল চিকিৎসায় রোগীর মৃত্যু, ২ চিকিৎসকসহ আটক ৪

নোয়াখালী বার্তা | ১৮ নভেম্বর, ২০১৭ | ০৯:২৩ পূর্বাহ্ণ |আপডেট: ১৮ নভেম্বর, ২০১৭ | ০৯:২৩

নোয়াখালীর বার্তা ডেস্ক : লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলার চন্দ্রগঞ্জ এসএমকে হাসপাতালে অপারেশন থিয়েটারে ফাতেমা বেগম নামে এক রোগীর মৃত্যু হয়েছে। ডাক্তারের ভুল চিকিৎসার কারণে তিনি মারা গেছেন বলে অভিযোগ করেন তার স্বজনরা। শুক্রবার ভোররাতে এ ঘটনা ঘটে।

ঘটনার পর হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ প্রতারণার আশ্রয় নিয়ে বিষয়টি ধামাচাপার চেষ্টা করে বলেও অভিযোগ করেন রোগীর স্বজনরা। এ ঘটনায় ২ চিকিৎসকসহ ৪জনকে আটক করেছে পুলিশ।

নিহতের ভাই ইসমাইল হোসেন জানান, ফাতেমা বেগম জরায়ুতে টিউমার রোগে আক্রান্ত হয়ে বৃহস্পতিবার বিকেলে চন্দ্রগঞ্জের এসএমকে হাসপাতালে ভর্তি হন। পরে রাতে চিকিৎসক কাজী ফয়েজা আক্তারের (গাইনি ও প্রসূতি রোগ বিশেষজ্ঞ) তত্ত্বাবধানে ফাতেমাকে অপারেশন থিয়েটারে নিয়ে যাওয়া হয়। ভোরে অপারেশন থিয়েটার থেকে বের হয়ে স্বজনদের খোঁজ করেন চিকিৎসক। এ সময় ফাতেমাকে ওই হাসপাতাল থেকে কুমিল্লা নিয়ে যেতে বলা হয়। কিন্তু এর আগেই ভুল চিকিৎসায় ফাতেমার মৃত্যু হয়েছে বলে জানান তিনি।

এ বিষয়ে জানতে হাসপাতালে গিয়ে কাউকে পাওয়া যায়নি। তবে এর আগে পুলিশ ওই হাসপাতাল থেকে অভিযুক্ত ডা. কাজী ফয়েজা আক্তার, প্রফেসর ডা. গোলাম মাইন উদ্দিন, আলমগীর হোসেনসহ চারজনকে আটক করে থানায় নিয়ে যায়।

রোগী মৃত্যুর ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে চন্দ্রগঞ্জ থানা পুলিশ জানান, রোগীকে অজ্ঞান করতে ইনজেকশান দেয়া হয়েছে,পরবর্তীতে তার জ্ঞান আর ফেরেনি। সকালে দুই চিকিৎসকসহ ৪জনকে থানা হেফাজতে নিয়ে আসা হয়েছে। এ ঘটনায় নিহতের পরিবারের কেউ থানায় অভিযোগ করলে তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Please follow and like us:
error0

এরকম আরো সংবাদ