বিয়ের জন্য প্রেমিকের বাড়িতে অনশন,ব্যর্থ হয়ে ধর্ষণের মামলা

দৈনিক নোয়াখালীবার্তা | ১৪ নভেম্বর, ২০২০ | ১৫:০৬ অপরাহ্ণ |আপডেট: ১৪ নভেম্বর, ২০২০ | ১৫:০৬

স্টাফ রিপোর্টার: প্রেমের টানে সংসার ছেড়ে প্রেমিকের বাড়িতে দুই দফায় বিয়ের দাবিতে অনশন করেছেন এক প্রেমিকা।
শুক্রবার রাতে অনশনে ব্যর্থ হয়ে ভুক্তভোগী নিজেই বাদী হয়ে অভিযুক্ত প্রেমিকের বিরুদ্ধে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ধর্ষণের অভিযোগ এনে মামলা দায়ের করেছেন।
ঘটনাটি ঘটেছে নোয়াখালীর চাটখিল উপজেলার খিলপাড়া ইউনিয়নের পূর্ব দেলিয়াই গ্রামে।
শনিবার (১৪ নভেম্বর) সকাল সাড়ে ১০টায় টায় চাটখিল থানার পরিদর্শক (তদন্ত) লাল মিয়া ঘটনাটি নিশ্চিত করেছেন। ভুক্তভোগী ও মামলার বরাত দিয়ে তিনি জানান, চাটখিলের পূর্ব দেলিয়াই গ্রামের মৃত লাতু মিয়ার ছেলে কাউছার হোসেনের (৩৫) সাথে লক্ষ্মীপুর জেলার রামগঞ্জ উপজেলার বাসিন্দা এক গৃহবধূর (১৯) সাথে মোবাইলে পরিচয় হয়। এ পরিচয়ের সূত্র ধরে মুঠোফোনে গত তিন বছর যাবত তাদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক চলছিল। পরে কাউছার তাকে বিয়ে করার প্রলোভন দেখিয়ে একাধিক স্থানে নিয়ে শারীরিক সম্পর্ক গড়ে তোলে। কিছু দিন আগে প্রেমিকা তার প্রেমিক কাউছারকে তাকে বিয়ে করার কথা বললে সে তাকে বিয়ে করতে অস্বীকৃতি জানায়। এরপর ওই প্রেমিকা প্রেমিকের বাড়িতে আসার পর কাউছারের পরিবারের লোকজন তাদের প্রেমের সম্পর্ক মেনে না নিয়ে বাড়ি থেকে বের করে দেন।
অপরদিকে, অভিযুক্ত কাউছার তার বাড়ি থেকে পালিয়ে গা ঢাকা দেয়। এরপর (৯ নভেম্বর ও ১২ নভেম্বর) প্রেমিকা কাউছারের স্বীকৃতির আশায় তার বাড়িতে অনশন করে ব্যর্থ হয়। অনশনে ব্যর্থ হয়ে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ধর্ষণের অভিযোগে প্রেমিকের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছেন তিনি।
চাটখিল থানার পরিদর্শক (তদন্ত) লাল মিয়া আরো জানান, মামলার আলোকে অভিযুক্ত আসামিকে গ্রেফতারে তৎপরতা চালাচ্ছে পুলিশ।

Please follow and like us:

এরকম আরো সংবাদ