বাসে দূর্বৃত্ত্বদের পেট্রোল বোমার আঘাতে নিহত কলেজ ছাত্র ওহিদুর রহমান বাবুর ৭ম মৃত্যুবার্ষিকী পালিত, দীর্ঘ ৭ বছরেও আর্থিক সহযোগিতা পাননি পরিবারটি,

দৈনিক নোয়াখালীবার্তা | ৪ ডিসেম্বর, ২০২০ | ১২:৩৭ অপরাহ্ণ |আপডেট: ৭ ডিসেম্বর, ২০২০ | ১৪:৫১

স্টাফ রিপোর্টার: ঢাকা শাহবাগে বাসে সন্ত্রাসীদের দেওয়া পেট্রোল বোমার আঘাতে নিহত ঢাকা কলেজ ছাত্র ও ছাত্রলীগ কর্মী ওহিদুর রহমান বাবুর ৭ম মৃত্যুবার্ষিকী পালিত হয়েছে। আজ শুক্রবার দুপুরে মরহুমের নিজ গ্রামের বাড়ী নোয়াখালীর বেগমগঞ্জের অভিরামপুরে স্থানীয় মসজিদে মিলাদ মাহফিল ও দোয়ার আয়োজন করা হয়েছে এছাড়া গরীবদের মাঝে খাবার বিতরণ করা হয়েছে। এদিকে দীর্ঘ ৭ বছরেও আর্থিক কোন সহযোগিতা পাননি অসহায় পরিবারটি।
নিহতের পরিবারের তার একমাত্র ভাই মজিবুর রহমান রুবেল জানান, নিখোঁজ বাবা হাজী ওয়াজিউল্লাহ (৮০) কে খুঁজতে গিয়ে ২০১৩ সালের ২৮ শে নভেম্বর দূর্বৃত্ত্ব সন্ত্রাসীরা যাত্রীবাহী বাসে পেট্রোল বোমার আঘাতে পুঁড়ে আমার ভাইসহ ১৯জন অগ্নিদগ্ধ হয়ে মৃত্যুবরণ করেন। পরে ঢাকা মেডিকেলে মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়েও টিকতে পারেননি ঢাকা কলেজের রাষ্ট্রবিজ্ঞানের অনার্স ১ম বর্ষের ছাত্র ও ছাত্রলীগ কর্মী ওহিদুর রহমান বাবু। অবশেষে ৭ দিন পর ৪ ডিসেম্বর ২০১৩ ইং তারিখে ভোরে মৃত্যুবরণ করেন বাবু। এদিকে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে আবেদন করার পরও আর্থিক সাহায্য সহযোগিতা পাননি বলে দাবী করেন এই অসহায় পরিবারটি।
নোয়াখালীর বেগমগঞ্জের আমান উল্যাহপুর ইউনিয়নের অভিরামপুরে তার গ্রামের বাড়ি। সন্ত্রাসীদের ভয়ে ও ভিটি মাটি থেকে উচ্ছেদ আতঙ্কে রয়েছে এ পরিবারটি। জানা যায়, নিহতের পিতা হাজী ওয়াজিউল্লাহ গণপূর্ত অধিদপ্তরের একজন জরিপকারক ছিলেন। ঢাকা সুপার মার্কেটের মালিকানা নিয়া দন্দ থাকায় প্রতিপক্ষরা তাকে ২০১১ সালের ১৪ই জুলাই অপহরন করে নিয়ে যায়। নিখোঁজ পিতাকে খুঁজতে গিয়ে ছেলে বাসের পেট্রোল বোমায় নিহত হন। তার বৃদ্ধ মা ও অসহায় পরিবারটি মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর সহযোগিতা কামনা করছেন।

Please follow and like us:

এরকম আরো সংবাদ