সুবর্ণচরে চার বাড়িতে ডাকাতি, আতঙ্কে এলাকাবাসী

দৈনিক নোয়াখালীবার্তা | ১৫ ডিসেম্বর, ২০২০ | ১৩:৪৫ অপরাহ্ণ |আপডেট: ১৫ ডিসেম্বর, ২০২০ | ১৩:৪৫

স্টাফ রিপোর্টার:  নোয়াখালীর সুবর্ণচরে গত চারদিনে চার বাড়িতে র্দ্ধুর্ষ ডাকাতি সংঘটিত হয়েছে। এ সময় ডাকাতরা টাকা, স্বর্ণালংকারসহ ১১টি গরু লুট করেছে। ডাকাত আতঙ্কে রয়েছে এলাকাবাসী। রাত জেগে পাহারা দিচ্ছেন তারা।

সর্বশেষ রোববার গভীর রাতে চর ওয়াপদা ইউনিয়নের বাদামতলি এলাকায় আলী আহাম্মদ মাস্টারের বাড়িতে ডাকাত ঢুকে অস্ত্রের ভয় দেখিয়ে ১১টি গরু ও ৫০ হাজার টাকা লুট করে নিয়ে যায়। এ সময় ডাকাতদের হামলায় দুইজন আহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে।
একই দিন চরজব্বর ইউনিয়নের জাহাজমারা গ্রামে শাহজাহানের বাড়িতে ঢুকে ঘরের দরজা ভেঙে দেশীয় অস্ত্রের ভয় দেখিয়ে ১১ লাখ টাকা লুট করে নেয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। খবর পেয়ে সোমবার সকালে নোয়াখালী এসপি মো. আলমগীর হোসেন দুটি ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। তবে ১১ লাখ টাকা লুটের ঘটনাটি রহস্যজনক বলে ধারণা করেছে পুলিশ।

এর আগে চর ওয়াপদা ইউনিয়নে আল আমিন বাজারের পশ্চিমে এনায়েত উল্যাহর বাড়ি থেকে অস্ত্রের ভয় দেখিয়ে টাকা, ৪ ভরি স্বর্ণ ও ৪টি মোবাইল লুট করে নিয়ে যায়। এ সময় ডাকাতের হামলায় শাহাবুদ্দিনের স্ত্রী হাজেরা খাতুন আহত হন। এছাড়া প্রবাসী জসিমের বাড়িতে দরজা ভেঙে ডাকাতি চেষ্টার ঘটনা ঘটেছে। এ নিয়ে গত ৪ দিনে চার বাড়িতে ডাকাতির ঘটনা ঘটেছে।

ঘটনার সত্যতা স্বীকার চরজব্বর থানার ওসি (তদন্ত) ইব্রাহিম খলিল বলেন, এসব ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।
নোয়াখালী এসপি মো. আলমগীর হোসেন বলেন, বিষয়গুলোর তদন্ত চলছে। তবে ১১ লাখ টাকা লুটের ঘটনাটি সন্দেহ সৃষ্টি করে। পুলিশের মোবাইল টিম জোরদার ও নিরাপত্তার দাবি জানিয়েছেন স্থানীয় এলাকাবাসী।

Please follow and like us:

এরকম আরো সংবাদ