গৃহহীনদের জমি থেকে মাটি লুট, একজনের জেল-জরিমানা

দৈনিক নোয়াখালীবার্তা | ৩১ ডিসেম্বর, ২০২০ | ১৫:৩০ অপরাহ্ণ |আপডেট: ৩১ ডিসেম্বর, ২০২০ | ১৫:৩১

ষ্টাফ রিপোর্টার : নোয়াখালীর দ্বীপ উপজেলা হাতিয়ায় মুজিববর্ষে ‘ক’ শ্রেণীর গৃহহীনদের ঘর নির্মানের জন্য নির্ধারিত সরকারি জমি থেকে মাটি কেঁটে লুট করে নেয়ার অপরাধে আতাউর রহমান পলিন (৪০) নামে এক ব্যক্তিকে এক বছরের জেল এবং এক লক্ষ টাকা জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমান আদালত।
বৃহস্পতিবার সকালে উপজেলা জাহাজমারা ইউনিয়নের বিরবিরি গ্রামে এ জরিমানার ঘটনা ঘটে। অভিযুক্ত আতাউর রহমান পলিন উপজেলার জাহাজমারা ইউনিয়নের ৪নং ওয়ার্ড বিরবিরি গ্রামের গিয়াস উদ্দিনের ছেলে।

ভ্রাম্যমান আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও সহকারী কমিশনার (ভূমি) মুহাম্মদ মাজহারুল ইসলাম চৌধুরী জানান, মুজিববর্ষে ‘ক’ শ্রেণীর গৃহহীনদের ঘর নির্মানের জন্য জাহাজমারা ইউনিয়নের ৪নং ওয়ার্ডের ওই সরকারী খাস জমি নির্ধারন করে কাগজ পত্র উর্ধ্বতন কর্তপক্ষের কাছে পাঠানো হয়। ওই জমিতে দু-একদিনের মধ্যে ঘর নির্মানের সিদ্ধান্তও হয়েছে।

এ সংবাদ জানতে পেরে আতাউর রহমান পলিন রাতের আধারে ওই জমি থেকে মাটি কেটে নিয়ে যাচ্ছিল। খবর পেয়ে সকালে মাটি কাটা যন্ত্রসহ ঘটনাস্থল থেকে পলিনকে আটক করা হয়। পরে ভ্রাম্যমান আদালতে তাকে এক বছরের জেল দেয়া হয় এবং এক লাখ টাকা জরিমানা করা হয়। নগদ টাকা অনাদায়ে আরো তিন মাসের জেল দেয়া হয়।
এসময় উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. ইমরান হোসেন, জাহাজমারা পুলিশ ফাঁড়ির পুলিশ ও জাহাজমারা ইউনিয়ন ভূমি অফিসের কর্মকর্তা উপস্থিত ছিলেন।

Please follow and like us:

এরকম আরো সংবাদ