রোহিঙ্গাদের নাগরিক সনদ প্রদানে সহায়তা : ইউপি সদস্য গ্রেফতার

দৈনিক নোয়াখালীবার্তা | ৪ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ | ০২:৪৮ পূর্বাহ্ণ |আপডেট: ৪ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ | ০২:৪৮

ষ্টাফ রিপোর্টারঃ নোয়াখালীর সেনবাগ উপজেলার ৪নং কাদরা ইউনিয়ন পরিষদের জন্মনিবন্ধন ও নাগরিক সনদ নিয়ে ৩ রোহিঙ্গা যুবকের পাসপোর্ট গ্রহণের ঘটনার মামলায় কাদরা ইউনিয়ন পরিষদের ৩নং ওয়ার্ডের সদস্য আবদুল হাকিমকে (৪৩) গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।
মঙ্গলবার রাতে সেনবাগ থানার ওসি আবদুল বাতেন মৃধা ইউপি সদস্য গ্রেপ্তারের বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, সোমবার গভীর রাতে আবদুল হাকিমকে নিজ বাড়ি থেকে গ্রেপ্তার করা হয়।
মঙ্গলবার দুপুরে নোয়াখালীর বিচারিক আদালতে তাকে হাজির করলে বিজ্ঞ আদালত কারাগারে প্রেরণের নির্দেশ দেন।
উল্লেখ্য, তিন রোহিঙ্গা যুবক মোহাম্মদ ইউসুফ, মোহাম্মদ মুছা ও মোহাম্মদ আবদুল আজিজ কক্সবাজারের উখিয়ার হাকিমপাড়া শরণার্থী শিবির থেকে সেনবাগে এসে সেনবাগের কাদরা ইউপির জন্ম নিবন্ধন ও নাগরিক সনদপত্র দিয়ে ৬নং ওয়ার্ডের নজরপুর ও সেনবাগ গ্রামের ঠিকানা ব্যবহার করে নোয়াখালী আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিস থেকে ২০১৮ সালের ২৪ ডিসেম্বর পাসপোর্ট সংগ্রহ করে।
এরপর ওই তিন রোহিঙ্গা যুবক চট্টগ্রামের আকবর শাহ থানা পুলিশের হাতে গ্রেপ্তার হলে ঘটনাটি নিয়ে পুরো দেশজুড়ে আলোড়ন সৃষ্টি হয়।
আকবর শাহ থানার এসআই আশাদুল ইসলাম বাদি হয়ে চট্টগ্রামের আকবর শাহ থানায় মামলা নং ৬ তারিখ ৫/৯/২০১৯ দায়ের করে। ওই মামলা আদালত কর্তৃক জিআর মামলা নং ৩৩২/২০১৯ কর্তৃক গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করা হলে ওই গ্রেপ্তারি পরোয়ানার ভিত্তিতে সেনবাগ থানা পুলিশ আবদুল হাকিমকে গ্রেপ্তার করে নোয়াখালী বিচারিক আদালতের মাধ্যমে কারাগারে প্রেরণ করে।

Please follow and like us:

এরকম আরো সংবাদ