কোম্পানীগঞ্জ হরতালে পুলিশের লাঠিচার্জ, আহত ১২

দৈনিক নোয়াখালীবার্তা | ২০ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ | ১০:৫০ পূর্বাহ্ণ |আপডেট: ২০ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ | ১০:৫০

ষ্টাফ রিপোর্টার : নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের ছোট ভাই পৌর মেয়র কাদের মির্জার আহ্বানে হরতালের সমর্থনে মিছিল চলাকালে পুলিশ লাঠিচার্জ করেছে। এসময় ১২ জন আহত হয়েছেন।
শনিবার (২০ ফেব্রুয়ারি) সকাল সাড়ে ৭টার দিকে এই ঘটনা ঘটে।
বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন কোম্পানীগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মীর জাহিদুল হক রনি।
আহতরা হলেন, উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক প্রভাষক গোলাম ছারওয়ার, বসুরহাট পৌরসভা ৯ নম্বর ওয়ার্ড যুবলীগের সভাপতি রাজীব, পিচ্ছি মাসুদ, পৌরসভা ৪ নম্বর ওয়ার্ড যুবলীগের সভাপতি জাহাঙ্গীর আলম, যুবলীগ নেতা আরজুসহ বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মী সমর্থক।
মির্জা কাদেরের সমর্থকদের দাবি, হরতালের সমর্থনে তার সমর্থিত নেতাকর্মী বসুরহাট বাজারের রুপালী চত্তর থেকে জমায়েত হয়ে মিছিল নিয়ে থানার সামনে গেলে পুলিশ তাদের ওপর লাঠিচার্জ করে। এসময় তাদের ১২ নেতাকর্মী আহত হয় এবং কয়েকটি চেয়ার ভাংচুর করা হয়।
ওসি মীর জাহিদুল হক রনি জানান, সকালে কাদের মির্জা ওসি এবং পরিদর্শককে (তদন্ত) থানা থেকে বাহির করে দেওয়ার হুমকি দিয়ে থানায় আসেন। এরপর পুলিশের মুখের ওপর হাত নিয়ে অশ্লীল কথাবার্তা বলেন। কাদের মির্জা পুলিশের সিনিয়র অফিসারদের সঙ্গে গায়ে পড়ে মারমুখী আচরণ করে বিশৃঙ্খলা করার চেষ্টা করলে পুলিশ হট্টগোল সৃষ্টিকারী মির্জার সমর্থকদের ওপর লাঠিচার্জ করে।
অপরদিকে, পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে কোম্পানীগঞ্জে দুইজন ম্যাজিস্ট্রেট নিয়োগ করা হয়ে। এছাড়াও উদ্ভুত পরিস্থিতিতে কোম্পানীগঞ্জে র‌্যাব, ডিবি ও অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

Please follow and like us:

এরকম আরো সংবাদ