আলাউদ্দিন হত্যায় মামলায় আদালতে পুলিশের প্রতিবেদন

দৈনিক নোয়াখালীবার্তা | ৩০ মার্চ, ২০২১ | ১৪:২৫ অপরাহ্ণ |আপডেট: ৩০ মার্চ, ২০২১ | ১৪:২৫

ষ্টাফ রিপোর্টার : নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জের বসুরহাটে ৯ মার্চ দুই পক্ষের সহিংসতার ঘটনায় গুলিবিদ্ধ হয়ে শ্রমিক লীগের নেতা আলাউদ্দিন (৩২) নিহত হওয়ার ঘটনায় থানায় কোনো মামলা হয়েছে কি না, সে বিষয়ে আদালতের নির্দেশনা অনুযায়ী প্রতিবেদন দাখিল করেছে পুলিশ। আজ সোমবার কোম্পানীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মীর জাহেদুল হক নোয়াখালীর চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে এ-সংক্রান্ত প্রতিবেদন দাখিল করেছেন।
জানতে চাইলে আদালতের নির্দেশনা অনুযায়ী প্রতিবেদন দাখিলের বিষয়টি নিশ্চিত করেন ওসি মীর জাহেদুল হক। সোমবার সন্ধ্যায় তিনি বলেন, ১৪ মার্চ আদালত তাঁকে নির্দেশ দিয়েছিলেন, ৯ মার্চ রাতে বসুরহাটে সহিংসতার ঘটনায় গুলিবিদ্ধ হয়ে আলাউদ্দিন নিহত হওয়ার ঘটনায় থানায় কোনো মামলা হয়েছে কি না, তা জানাতে। তিনি আদালতের নির্দেশনার আলোকে পুরো ঘটনা বিস্তারিত উল্লেখপূর্বক আদালতে সোমবার একটি প্রতিবেদন দাখিল করেছেন। তবে প্রতিবেদনের বিস্তারিত জানাতে রাজি হননি ওসি মীর জাহেদুল হক।
এদিকে আদালতে আলাউদ্দিন হত্যার ঘটনায় দায়ের করা নালিশি মামলার আইনজীবী হারুনুর রশীদ হাওলাদার বলেন, আদালতের নির্দেশনা মোতাবেক থানা থেকে সোমবার একটি প্রতিবেদন ওসি আদালতে দাখিল করেছেন। এখন প্রতিবেদন দাখিল হওয়ার বিষয়টি তাঁরা আদালতের নজরে আনবেন। সে ক্ষেত্রে আদালতে বিষয়টির ওপর শুনানি অনুষ্ঠিত হতে পারে।
প্রসঙ্গত, গত ৯ মার্চ বসুরহাটে আওয়ামী লীগের আবদুল কাদের মির্জা ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মিজানুর রহমানের (বাদল) অনুসারীদের মধ্যে সংঘর্ষে শ্রমিক লীগের ওয়ার্ড পর্যায়ের সভাপতি আলাউদ্দিন (৩২) গুলিবিদ্ধ হয়ে মারা গেছেন। তিনি মিজানুর রহমানের অনুসারী।
পরবর্তীতে গত ১৪ মার্চ এমদাদ হোসেন বাদী হয়ে নোয়াখালীর চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের ৪ নম্বর আমলি আদালতে একই আসামিদের বিরুদ্ধে একটি নালিশি মামলা করেন। আদালত শুনানি শেষে বাদীর আরজিতে উল্লেখ করা ঘটনার বিষয়ে কোম্পানীগঞ্জ থানায় ইতিপূর্বে কোনো মামলা হয়েছে কি না, তা জানতে চেয়ে ১৫ দিনের মধ্যে প্রতিবেদন দিতে ওসিকে নির্দেশ দেন। সে আলোকে সোমবার থানা থেকে এ-সংক্রান্ত প্রতিবেদন আদালতে দাখিল করা হয়।

Please follow and like us:

এরকম আরো সংবাদ