জমি নিয়ে বিরোধ স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতাকে হত্যা, চাচা আটক

দৈনিক নোয়াখালীবার্তা | ৩০ মার্চ, ২০২১ | ১৪:০৫ অপরাহ্ণ |আপডেট: ৩০ মার্চ, ২০২১ | ১৪:০৫

ষ্টাফ রিপোর্টার :  নোয়াখালীতে মসজিদ থেকে ডেকে নিয়ে স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতাকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগে তার চাচাকে আটক করেছে পুলিশ।
মঙ্গলবার ভোরে সদর উপজেলার কাশিপুরের দত্তবাড়ি এলাকার নিজ বাড়ি থেকে তাকে আটক করা হয়। আটক মো. ইকবাল হোসেন(৪০) একই এলাকার আব্দুল আলীর ছেলে।
নিহত মোহাম্মদ আলী মনু (২৮)ওই এলাকার আকবর আলীর ছেলে। তিনি শহর স্বেচ্ছাসেবকলীগের ত্রাণ ও দুর্যোগ বিষয়ক সম্পাদক ছিলেন।
স্থানীয়রা জানায়, সোমবার রাতে দত্তবাড়ি এলাকা থেকে মনুকে ধরে নিয়ে যান চাচা ইকবাল ও তার সহযোগীরা। এরপর বাড়ির পাশে একটি দোকানে আটকে রেখে পিটিয়ে হত্যা করেন। এ সময় বাঁচাতে গিয়ে হামলার শিকার হন মনুর ছোট ভাই আহমেদ আলী। পরে তাকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয় আর মনুকে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে নিলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।
নিহতের ভাই আহমেদ আলী জানান, চাচা ইকবাল ও তার সহযোগী শাহাদাত হোসেনসহ কয়েকজন এশার নামাজের পর মনুকে মসজিদ থেকে ডেকে লিটন দাসের লেপ-তোশকের দোকানে নিয়ে যান। এ সময় তারা মনুকে আটকে রেখে লোহার রড ও হেমার দিয়ে শরীরের বিভিন্ন স্থানে এলোপাতাড়ি পিটিয়ে জখম করেন। পরে আমরা মনুকে উদ্ধার করে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে নেই। সেখানে নেয়ার কিছুক্ষণ পর তিনি মারা যান।
নিহতের মা শাহিদা বেগম বলেন, ইকবালদের সঙ্গে আমাদের জমি নিয়ে বিরোধ রয়েছে। এ ঘটনার জের ধরে পরিকল্পিতভাবে আমার ছেলে মনুকে মসজিদ থেকে ডেকে নিয়ে পিটিয়ে হত্যা করা হয়েছে।
সুধারাম থানার ওসি মো. শাহেদ উদ্দিন জানান, মরদেহ নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় অভিযুক্ত চাচাকে আটক করা হয়েছে।

Please follow and like us:

এরকম আরো সংবাদ