নোয়াখালীতে কলেজ ছাত্র খুন, গ্রেফতার ৮

নোয়াখালী বার্তা | ১৫ মে, ২০১৯ | ০৯:৫৮ পূর্বাহ্ণ |আপডেট: ১৫ মে, ২০১৯ | ০৯:৫৮

বেগমগঞ্জ প্রতিনিধি:
নোয়াখালীর বেগমগঞ্জ উপজেলার চৌমুহনী পৌরসভায় সিনিয়র জুনিয়র দ্বন্দ্বে জুহায়ের হোসেন (১৯) নামে এক কলেজছাত্রকে ছুরিকাঘাতে হত্যা করা হয়েছে। এ ঘটনায় জড়িত সন্দেহে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ৮ জনকে আটক করেছে পুলিশ।

মঙ্গলবার রাতে চৌমুহনী পৌরসভার আলীপুর দিঘীর পাড়ে এ হত্যার ঘটনা ঘটে। নিহত জুহায়ের হোসেন ওই এলাকার বেলাল হোসেনের ছেলে এবং নোয়াখালী সরকারি কলেজের ছাত্র ছিলেন। আটকরা হলেন, মিরওয়ারিশপুর এলাকার আজিম হোসেনের ছেলে আবিদ হোসেন ও তার সহযোগী ফাহিমসহ আটজন।

নিহত জুহায়ের এর বাবা বেলাল হোসেন জানান, সিনিয়র জুনিয়রের মধ্যে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে কয়েকদিন আগে আটক আবিদের বন্ধু রাকিবকে মারধর করা হয়। এ ঘটনার জন্য জুহায়েরকে জিজ্ঞাসাবাদ করতে মঙ্গলবার রাতে দিঘীর পাড়ে আসে আবিদ, আশরাফ ফাহিম ও তার কয়েক বন্ধু। এ সময় জুহায়ের, আবিদ ও তাদের বন্ধুদের মধ্যে হাতাহাতির ঘটনা ঘটে। এর এক পর্যায়ে জুহায়েরের কয়েকজন বন্ধু তাকে বাড়ির দিকে নিয়ে যাচ্ছিল। এ সময় আবিদ জুহায়েরকে পেছন থেকে ধরে টেনে পুনঃরায় দিঘীর পূর্ব পাড়ে নিয়ে এলে জুহায়েরের চিৎকার শুনতে পায় তার বন্ধুরা। পরে তারা এগিয়ে গিয়ে রক্তাক্ত অবস্থায় জুহায়েরকে পড়ে থাকতে দেখে উদ্ধার করে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

বেগমগঞ্জ সার্কেলের সহকারী পুুলিশ সুপার (এএসপি) মো. শাহজাহান বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, ধারণা করা হচ্ছে জুহায়েরকে পেছন থেকে ধরে নিয়ে তার বুকে ছুরি মারে আবিদ। ছুরিবিদ্ধ জুহায়েরকে হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

তিনি আরো বলেন, ঘটনার পর ঘটনাস্থলের আশপাশে অভিযান চালিয়ে দুই জন ও নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে আসা আরো ছয় জনকে আটক করা হয়েছে। আটককৃতদের জিজ্ঞাসাবাদ চলছে। এঘটনায় বুধবার বিকাল ৩টা পর্যন্ত নিহতের পরিবারের পক্ষ থেকে থানায় কোন মামলা দায়ের করা হয়নি।

Please follow and like us:
error0

এরকম আরো সংবাদ