গাছে বেঁধে নারী-পুরুষকে নির্যাতন

নোয়াখালী বার্তা ডেস্ক | ৬ জুন, ২০১৯ | ১৩:২৮ অপরাহ্ণ |আপডেট: ৬ জুন, ২০১৯ | ১৩:৩০

স্টাফ রিপোর্টার :

নোয়াখালীর সদরের আণ্ডারচর ইউপির বুদ্ধিনগর গ্রামে পরকীয়ার অভিযোগ তুলে নারী-পুরুষকে গাছে বেঁধে প্রকাশ্যে লাঠি দিয়ে পেটানো হয়েছে।

এ ঘটনায় বুধবার রাতে ওই নারী বাদী হয়ে গ্রাম্য চিকিৎসক জাফরসহ আটজনের নামে থানায় মামলা করেছেন। ঘটনার পর থেকে তারা পলাতক রয়েছেন।

নির্যাতনের শিকার ওই নারী বুদ্ধিনগর এলাকায় থেকে স্থানীয় একটি ইটভাটায় কাজ করেন। তিনি মা ও দুই সন্তানকে নিয়ে থাকেন। নির্যাতনের একটি ভিডিও ফেসবুকে ভাইরাল হয়েছে।

ভিডিওতে দেখা যায়, এক ব্যক্তিকে গাছের সঙ্গে বেঁধে রাখা হয়েছে, আর পাশে নারীকে লাঠি দিয়ে এলোপাতাড়ি মারধর করছেন জাফর। এর কিছুক্ষণ পর ওই ব্যক্তিকেও লাঠি দিয়ে পেটানো হয়। মারধরের একপর্যায়ে ওই ব্যক্তিকে বেঁধে রাখা অবস্থায় তার মাথা ন্যাড়া করা হয়।

নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ওই ব্যক্তি জানান, তিনি তার সহকর্মী ওই নারীর কাছে দুই হাজার টাকা পেতেন। টাকা আনার জন্য রোববার সকালে তার বাড়ি গেলে স্থানীয় কিছু লোকজন মিথ্যা অপবাদ দিয়ে তাকে ধরে নিয়ে যায়। পরে তার সহকর্মী ও তার মা অনুরোধ করলেও তাকে ছাড়েনি। উল্টো ওই নারীকেও মারধর করা হয়।

সুধারাম থানার ওসি আনোয়ার হোসেন বলেন, বুধবার সন্ধ্যায় নির্যাতনের শিকার ওই নারী, জাফরের স্ত্রী ও তার মাকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য থানায় আনা হয়েছে। ঘটনা তদন্ত করা হচ্ছে।

Please follow and like us:
error0

এরকম আরো সংবাদ