ঘূর্ণিঝড় ‘ফণী’র তান্ডব:নোয়াখালীতে নতুন “ঘর” পেল ২৩৫ পরিবার

নোয়াখালী বার্তা ডেস্ক | ৬ জুন, ২০১৯ | ১২:৫৯ অপরাহ্ণ |আপডেট: ৬ জুন, ২০১৯ | ১৩:০০

ষ্টাফ রিপোর্টার :

ঘূর্ণিঝড় ‘ফণী’র তান্ডবে নোয়াখালীর সুবর্ণচর উপজেলার চর ওয়াপদা ইউনিয়নের ক্ষতিগ্রস্ত ২৩৫ পরিবারের সদস্যদের হাতে সরকারিভাবে নির্মিত নতুন ঘরের চাবি তুলে দেওয়া হয়।


বৃহস্পতিবার  (০৬ জুন) দুপুরে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারকে ঘর বুঝিয়ে দেন নোয়াখালী-০৪ আসনের সংসদ সদস্য একরামুল করিম চৌধুরী। 


এসময় নোয়াখালীর জেলা প্রশাসক তন্ময় দাস, জেলা আওয়ামীলীগ নেতা মাহমুদুর রহমান জাবেদ,  উপজেলা নির্বাহী অফিসার ইবনুল হাসান, ইউপি চেয়ারম্যান মনির আহম্মদ প্রমুখ উপস্তিত ছিলেন।    
সংসদ সদস্য একরামুল করিম চৌধুরী বলেন শেখ হাসিনা যে অঙ্গিকার করেন, তা বাস্তবায়ন হয়। তিনি অসহায় মানুষের স্বপ্ন পুরনে সারা জীবন কাজ করে গেছেন। শেখ হাসিনার একজন ক্ষুদ্র কর্মী হিসেবে ঘূর্ণিঝড় ‘ফণী’র তান্ডবে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারগুলোকে দেওয়া কথা আমরা রেখেছি। আজ তাদের মানসম্মত নতুন ঘর উপহার দিতে পেরে আমরা আনন্দিত। 


গত ৩ মে রাতে ঘূর্ণিঝড় ‘ফণী’র তান্ডবে নোয়াখালীর সদর, সুবর্ণচর ও কোম্পানীগঞ্জ উপজেলায় ৩৫৬টি পরিবারের বসতঘর সম্পূর্ন বিধ্বস্ত হয়। এর মধ্যে সদর উপজেলায় ১২১, সুবর্ণচর উপজেলায় ২২৫ এবং  কোম্পানীগঞ্জ উপজেলায় ১২টি ঘর বিধ্বস্ত হয়।  ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারগুলোর ঘর নির্মাণের দায়িত্ব নেয় সরকার।

Please follow and like us:
error0

এরকম আরো সংবাদ