কবির হাটে নানার বাড়িতে ভিমরুলের কামড়ে শিশুর মৃত্যু

নোয়াখালী বার্তা ডেস্ক | ১৮ আগস্ট, ২০১৯ | ১৩:০১ অপরাহ্ণ |আপডেট: ১৮ আগস্ট, ২০১৯ | ১৩:০১

ষ্টাফ রিপোর্টার:
নোয়াখালীর কবিরহাটে ভিমরুলের কামড়ে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শ্রাবণ নামে সাত বছরের এক শিশুর মৃত্যু হয়েছে। এ ঘটনায় নিহতের ছোট ভাই ও নানাসহ আরো দুইজন আহতাবস্থায় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

নোয়াখালীর কবিরহাটে ভিমরুলের কামড়ে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শ্রাবণ নামে সাত বছরের এক শিশুর মৃত্যু হয়েছে। এ ঘটনায় নিহতের ছোট ভাই ও নানাসহ আরো দুইজন আহতাবস্থায় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

এর আগে শনিবার সন্ধ্যায় কবিরহাট উপজেলার পূর্ব রাজুরগাঁও গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। পরে শনিবার রাতে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ওই শিশুর মত্যু হয়।  

শ্রাবণ কবিরহাট উপজেলার পূর্ব রাজুরগাঁও গ্রামের বেলাল হোসেনের ছেলে ও স্থানীয় একটি কিন্ডারগার্টেনের প্রথম শ্রেণির ছাত্র। 

স্বজনরা অভিযোগ করে বলেন, চিকিৎসক ও নার্সদের অবহেলার কারণেই শিশুটির মত্যু হয়েছে। তবে এ বিষয়ে কোনো কথা বলতে রাজি হয়নি হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।  

শ্রাবণের বাবা জানান, একই উপজলার ফরাজিরহাট এলাকায় নানার বাড়িত বেড়াতে যায় তার দুই ছেলে ও স্ত্রী। বিকেলে নানার সঙ্গে নৌকায় ঘুরতে যায় তারা। এ সময় ভিমরুল তাদের সবাইকে এলোপাতাড়ি কামড়াতে থাকে। এতে তিনজনই গুরুতর আহত হয়। পরে সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে তাদের উদ্ধার করে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে নেয়া হয়।

তিনি আরো জানান, গুরুতর অবস্থায় ভর্তি করানো হলেও হাসপাতালের চিকিৎসক ও নার্সরা তেমন গুরুত্ব দেয়নি। তাদের অবহেলার কারণেই এক ঘণ্টা পর শ্রাবণ মারা যায়।

Please follow and like us:
error0

এরকম আরো সংবাদ