যৌতুকের জন্য গৃহবধূকে নির্যাতন করে হত্যার অভিযোগ । লাশ ফেলে পালিয়েছে ঘাতক স্বামী

নোয়াখালী বার্তা ডেস্ক | ১৬ অক্টোবর, ২০১৯ | ১৪:৫৯ অপরাহ্ণ |আপডেট: ১৬ অক্টোবর, ২০১৯ | ১৪:৫৯

সূবর্ণচরে প্রতিনিধি:
নোয়াখালীর সূবর্ণচরে যৌতুকের জন্য গৃহবধূকে নির্যাতন ও শ্বাসরোধ করে হত্যার অভিযোগ করেছে নিহতের পরিবারের সদস্যরা।

এদিকে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে গৃহবধূর লাশ ফেলে পালিয়েছে ঘাতক স্বামী ও তার স্বজনরা।

বুধবার সকালে লাশের সুরুত হাল করেছে সুধারাম থানা পুলিশ। নিহতের স¦জনরা জানান, গত সাড়ে চার বছর আগে সূবর্ণচরের চরহাসান গ্রামে সফু তালুকদারের ছেলে জামাল উদ্দিনের সাথে পাশের গ্রামের চর রশিদের মৃত আবুল কালামের মেয়ে মারিয়া আক্তারের বিয়ে হয়।

বিয়ের পর থেকে যৌতুকের জন্য ও পারিবারিক বিরোধের জেরে গৃহবধূকে স্বামী ও তার শ্বাশুড়ি, ননদ ও দেবর মিলে মঙ্গলবার বিকেলে গৃহবধুকে মারধর করে ও শ্বাসরোধ করে হত্যা করে। কিন্তু তারা বিষখেয়ে আত্মহত্যা করেছে বলে প্রচার করে। পরে তাকে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেল ডাঃ তাকে মৃত বলে ঘোষনা করেন।

এসময় হাসপাতালে লাশ রেখে স্বামী ও তার স্বজনরা পালিয়ে যায়। নিহতের স্বজনরা আরও অভিযোগ করেন, স্বামী ও শশুর পরিবারের নির্যতনের কারণে এর আগে সে থানায় দুইটি জিডি করেছে।

এ ব্যপারে চরজব্বর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (তদন্ত) মোঃ ইব্রাহিম খলিল জানান, যেহেতু হাসপাতালে মারা গেছে মামলাও সেখানে হবে এবং তারা ময়না তদন্ত রিপোর্টের পর ব্যবস্থা নিবেন বলে জানান।

সুধারাম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (তদন্ত) আব্দুল বাতেন জানান লাশের সুরুত হাল করা হয়েছে। এদিকে মামলার প্রস্তুতি চলছে বলে নিহতের চাচা সিরাজুল ইসলাম জানান।

Please follow and like us:
error0

এরকম আরো সংবাদ