নোয়াখালীতে বিয়ের প্রলোভনে কিশোরীকে ধর্ষণ

দৈনিক নোয়াখালীবার্তা | ২৫ নভেম্বর, ২০১৯ | ১৫:১৭ অপরাহ্ণ |আপডেট: ২৫ নভেম্বর, ২০১৯ | ১৬:০৯

ষ্টাফ রিপোর্টার :
নোয়াখালীতে এমএলএম কোম্পানী টিনসি বাংলাদেশ এর সেভেন স্টার কামরুল হাসান শিমুলের (২৫) প্রেমের প্রতারণায় বিয়ের প্রলোভনে একাধিকবার ধর্ষিত হয়েছেন বলে রোববার রাতে সুধারাম মডেল থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন ফেরদৌসি বেগম (২০) নামের এক কিশোরী।

ভিকটিম অভিযোগ করে বলেন কামরুল হাসান শিমুলসহ একাধিক প্রতারক জেলা শহরের মাইজদী বাজার এলাকার নাপিতের পোল মনোয়ারা প্লাজার তিন তলায় এমএলএম কোম্পানী টিনসি বাংলাদেশের আঞ্চলিক অফিস নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে প্রতারণার মাধ্যমে তরুন যুবক-যুবতীদের মোটা মুনাফার লোভ দেখিয়ে তাদের কাছ থেকে টাকা নিয়ে সেই টাকা লোপাট করে আসছেন। ভিকটিম নিজেও শিমুলসহ ওই অফিসের কর্মকর্তাদের প্রস্তাবে রাজি হয়ে মোটা অংকের মূলধন বিনিয়োগ করে আদের সাথে কাজ শুরু করেন।

একই অফিসে কাজের সুবাধে শিমুল আবেগ আপ্লেতু হয়ে ভালবাসার কথা বলে ভিকটিমের সাথে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তোলেন। এরপর বিয়ের প্রলোভনে ভিকটিমকে বিভিন্ন জায়গায় নিয়ে একাধিকবার ধর্ষণ করেন। এরপর গত ১৮ নভেম্বর দুপুরে অফিসের লোকজনের সামনে ভিকটিম শিমুলকে বিয়ে করার জন্য চাপ প্রয়োগ করলে শিমুল ভিকটিমকে প্রকাশ্যে মারধর শুরু করেন ও গলা টিপে ধরেন। এসময় অফিসের লোকজন ভিকটিমকে শিমুলের আক্রমন থেকে রক্ষা করেন।

ভিকটিম আরো জানান ওই ঘটনায় তিনি সুধারাম থানায় মামলা দায়ের করলে শিমুল এবং তার বাড়াটে লোকজন ভিকটিমকে প্রাণে হত্যার হুমকি দিচ্ছেন। নিজের জীবন রক্ষার্থে এবং প্রেমিক শিমুলের সাথে বিয়ের দাবিতে প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেন ওই ভিকটিম।

সুধারমা মডেল থানার ওসি নবীর হোসেন বলেন ভিকটিমের অভিযোগটি ওসি (তদন্ত) আবদুল বাতেনকে তদন্তপূর্বক ব্যবস্থা নিতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

Please follow and like us:

এরকম আরো সংবাদ