হাতিয়ায় অস্ত্রধারীদের গ্রেপ্তারে মিললো অস্ত্রের কারখানার সন্ধান

দৈনিক নোয়াখালীবার্তা | ১৫ মার্চ, ২০২০ | ১৩:১০ অপরাহ্ণ |আপডেট: ১৫ মার্চ, ২০২০ | ১৩:১০

ষ্টাফ রিপোর্টার : নোয়াখালীর দ্বীপ উপজেলা হাতিয়ার বয়ারচর এলাকায় অভিযান চালিয়ে ৫টি আগ্নেয়াস্ত্রসহ বাবলু (৩০) ও আনোয়ার হোসেন খবর (৫৫) নামের দু’জনকে গ্রেপ্তারের পর তাদের দেওয়া তথ্যমতে মিললো অস্ত্র তৈরীর কারখানার সন্ধান। পরে ওই কারখানা থেকে একটি বন্দুকের গুলি ও অস্ত্র তৈরির বিপুল পরিমান সরঞ্জাম উদ্ধার করা হয়েছে।
রোববার ভোর থেকে সকাল পর্যন্ত র‌্যাব-১১ এর স্পেশাল কোম্পানির কমান্ডার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. জসিম উদ্দীন চৌধুরী পিপিএম এর নেতৃত্বে এ অভিযান চালানো হয়। দুপুরে গ্রেফতারকৃত বাবলু ও আনোয়ার হোসেনসহ উদ্ধারকৃত অস্ত্র নোয়াখালী প্রেসক্লাবে সাংবাদিকদের সামনে হাজির অভিযানের বিস্তারিত জানান দেয় র‌্যাব।
র‌্যাব জানায়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অস্ত্র ক্রয়-বিক্রির খবর পেয়ে র‌্যাব-১১ সিপিএসসি নারায়ণগঞ্জ ও সিপিসি-৩ লক্ষ্মীপুর প্রথমে হাতিয়ার বয়ারচরে অভিযান চালায়। এসময় পাঁচটি আগ্নেয়াস্ত্রসহ বাবুল ও আনোয়ারকে গ্রেপ্তার করা হয়। গ্রেপ্তারকৃত বাবুল ও আনোয়ার হোসেন হাতিয়ার বয়ারচরের বাসিন্দা।
পরে তাদের দেওয়া তথ্যমতে লক্ষ্মীপুর জেলার রামগতি বাজারের রায়হান ওয়ার্কশপে অভিযান চালানো হয়। ওয়ার্কশপের একটি কক্ষ তারা অস্ত্র তৈরির কারখানা হিসেবে ব্যবহার করে। ওই কক্ষ থেকে একটি একনলা বন্দুকের গুলিসহ বিপুল পরিমাণে অস্ত্র তৈরির সরঞ্জাম উদ্ধার করা হয়েছে।
র‌্যাব-১১ এর স্পেশাল কোম্পানির কমান্ডার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. জসিম উদ্দীন চৌধুরী পিপিএম বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, রামগতি বাজারে রায়হানের ওয়ার্কশপের আড়ালে অস্ত্র তৈরি করা হয়। ওই অস্ত্রগুলো চরের বিভিন্ন সন্ত্রাসী বাহিনীর কাছে বিক্রি করা হয়। গ্রেপ্তারকৃতদের বিরুদ্ধে অস্ত্র আইনে মামলা দায়ের করে হাতিয়া থানায় হস্তান্তর করা হবে।

Please follow and like us:
error0
Tweet 20
fb-share-icon20

এরকম আরো সংবাদ