প্রবাসীর বাড়ির চলাচলের রাস্তা বন্ধ করে দেয়াল নির্মাণ

দৈনিক নোয়াখালীবার্তা | ২৬ জুলাই, ২০২১ | ১৫:৩১ অপরাহ্ণ |আপডেট: ২৬ জুলাই, ২০২১ | ১৫:৩১

ষ্টাফ রিপোর্টার :  নোয়াখালী সদর উপজেলার নেয়াজপুর ইউনিয়নে সিঙ্গাপুর প্রবাসী নাসির উদ্দিন ফারুকের বাড়ির চলাচলের রাস্তা বন্ধ করে দেয়াল নির্মাণ করেছে প্রতিপক্ষের লোকজন। এতে ওই পরিবারের লোকজন অবরুদ্ধ হয়ে মানবেতর জীবন-যাপন করছে।
সোমবার (২৬ জুলাই) দুপুরে সরেজমিন উপজেলার জাহানাবাদ গ্রামের প্রবাসী নাসির উদ্দিন ফারুকের বাড়িতে গিয়ে দেখা গেছে তাঁর বাড়ির চলাচলের ১৫ ফুট চড়া রাস্তার মূল গেইটের সামনে একটি তিন ফুট উচ্চতা সম্পর্ণ দেয়াল নির্মাণ করে ও বাঁশের ঘেরা দিয়ে তাদের চলাচলের পথ অবরুদ্ধ করেছে প্রতিপক্ষ আহসান উল্যা ও জহির উদ্দিন।

প্রবাসীর স্ত্রী শারমীন আক্তার ও স্থানীয়রা জানান, জাহানাবাদ গ্রামের প্রবাসী নাসির উদ্দিন ফারুক তার শত বছরের পুরাতন ফরায়েজী বাড়ির পাশে ওয়ারিশ সুত্রে মালেকীয় একটি জায়গায় বসবাস শুরু করেন। বাড়ির ওই অংশে চলাচলের কোন পথ না থাকায় ২০১৩ সালে চলাচলের পথের জন্য প্রতিবেশী আহসান উল্যা ও জহির উদ্দিনের কাছ থেকে সাড়ে তিন শতাংশ জমি ছাপ কবলায় ক্রয় করেন। পরবর্তীতে ওই জমিতে প্রবাসী ফারুক চলাচলের জন্য ১৫ ফুট চড়া রাস্তা নির্মাণ করে রাস্তার সামনের অংশে বাড়ির স্থায়ী গেইট নির্মাণ করেন।

২০২০ সালের ১০ ডিসেম্বর হঠাৎ প্রতিপক্ষের লোকজন প্রবাসী ফারুকের ক্রয়কৃত ওই জমিতে তাদের মালিকানা দাবি করে ফারুকের বাড়ির চলাচলের পথ বন্ধ করে গেইটের সামনে তিন ফুট উচ্চতা সম্পূর্ণ দেয়াল নির্মাণ করে বাঁশ দিয়ে ঘেরাও করে তাদের চলাচলের পথ অবরুদ্ধ করে। এ ঘটনায় প্রবাসীর পরিবারের লোকজন স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান ও সুধারাম মডেল থানায় অভিযোগ করেও কোন প্রতিকার পাননি।

নেওয়াজপুর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান আমির হোসেন বাহাদুর বলেন, এবিষয়ে ইউনিয়ন পরিষদে বৈঠক ডাকা হয়েছে। বৈঠকে আহসান উল্যা ও জহির উদ্দিনরা সাড়া না দেওয়ায় পরবর্তীতে প্রবাসী ফারুকের স্ত্রী শারমীন আক্তারের অভিযোগের আলোকে সুধারাম থানায় একাধিকার বৈঠক হয়। বৈঠকে চলাচলের পথ থেকে নির্মিত ওই দেয়াল তুলে নিতে আহসান উল্যা ও জহির উদ্দিনদের নির্দেশ দেওয়া হয়।
সুধারামা মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. সাহেদ উদ্দিন বলেন, চলাচলের পথ থেকে দেয়াল সরিয়ে নিতে প্রতিপক্ষকে বলা হয়েছে। জমির মালিকানা সংক্রান্ত সমস্যা থাকলে সেটি আইনি প্রক্রিয়ায় সমাধান করা হবে।

Please follow and like us:

এরকম আরো সংবাদ