নোযাখালীতে স্বামী দেবরের গৃহবধূ নির্যাতনের ভিডিও ভাইরাল আটক ২

দৈনিক নোয়াখালীবার্তা | ১২ সেপ্টেম্বর, ২০২১ | ১৫:০৮ অপরাহ্ণ |আপডেট: ১২ সেপ্টেম্বর, ২০২১ | ১৫:০৮

ষ্টাফ রিপোর্টার :  নোয়াখালীর সেনবাগ উপজেলায় এক গৃহবধূকে স্বামী-দেবরের নির্যাতনের ভিডিও ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়লে পুলিশ অভিযুক্ত ২ আসামিকে আটক করে।
আটককৃতরা হলেন স্বামী আমির হোসেন ও তার বোন হাসিনা বেগম, তারা উপজেলার ৭ নম্বর মোহাম্মদপুর ইউনিয়নের ৩ নম্বর ওয়ার্ডের দক্ষিণ রাজারামপুর মোহাম্মদীয়া মিয়া বাড়ির মছিজ উদ্দিনের ছেলে-মেয়ে।

রোববার দুপুরে দুই আসামিকে আটক করেছে পুলিশ। এর আগে শনিবার বিকেল ৪টার দিকে উপজেলার ৭ নম্বর মোহাম্মদপুর ইউনিয়নের ৩ নম্বর ওয়ার্ডের দক্ষিণ রাজারামপুর মোহাম্মদীয়া মিয়া বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে। পরে রোববার সকাল থেকে গৃহবধূকে নির্যাতনের ভিডিও ফেসবুকে ভাইরাল হয়ে পড়ে।
স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, পারিবারিক কলহের জেরে গৃহবধূ আমেনা বেগমকে শনিবার বিকেল ৪টার দিকে তার স্বামী আমির হোসেন ও দেবর এরশাদ নির্দয়ভাবে চুলের মুঠি ধরে লাঠি পেটা করে এবং বেধড়ক চড় থাপ্পড়,লাথি, কিলঘুষি দিয়ে গুরুত্বর আহত করে। গৃহবধূকে নির্যাতনের ১মিনিট ১৭ সেকেন্ডের ভিডিও ফেসবুকে ভাইরাল হয়ে পড়ে।

জানা যায়, আমির ও এরশাদ মাদক ব্যবসা ও ডাকাতিতে জড়িত। তাদের ভয়ে কেউ এসব বিষয়ে প্রতিবাদ করার সাহস পায় না। ঘটনার পর নির্যাতনের শিকার গৃহবধূ বিবি আমেনা তার বাবার বাড়ি পার্শ্ববর্তী কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার বসুরহাটে গিয়ে চিকিৎসা নিচ্ছেন।
সেনবাগ থানার ওসি আব্দুল বাতেন মৃধা জানান,শনিবার বিকেলে ওই গৃহবধূকে নির্যাতনের ঘটনা ঘটে। পরে রোববার সকালের দিকে নির্যাতনের ভিডিওটি ফেসবুকে ভাইরাল হয়ে পড়ে। এ ঘটনায় দুইজনকে আটক করা হয়েছে। তবে ঘটনায় আরেক হোতা দেবর পলাতক রয়েছে।
ওসি বাতেন আরো জানান, এ ঘটনায় মামলা হলে সোমবার সকালে আটককৃতদের নোয়াখালী চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে সোপর্দ করা হবে।

Please follow and like us:

এরকম আরো সংবাদ