নোযাখালীতে ফুটবল খেলা নিয়ে সংঘর্ষ ও গোলাগুলি,আহত ৬

দৈনিক নোয়াখালীবার্তা | ২ অক্টোবর, ২০২১ | ১৪:৩১ অপরাহ্ণ |আপডেট: ২ অক্টোবর, ২০২১ | ১৪:৩১

সোনাইমুড়ী প্রতিনিধি : নোয়াখালীর সোনাইমুড়ী উপজেলায় ফুটবল খেলাকে কেন্দ্র করে দুটি গ্রামের বাসিন্দাদের মধ্যে পাল্টাপাল্টি ধাওয়া, সংঘর্ষ ও গোলাগুলির ঘটনা ঘটেছে । এ ঘটনায় আহত হয়েছেন কমপক্ষে ছয়জন । তাঁদের মধ্যে চারজনকে নোয়াখালীর ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। গতকাল শুক্রবার রাত সাড়ে আটটার দিকে উপজেলার দেওটি ইউনিয়নের তালতলা বাজারে এ ঘটনা ঘটে ।
সংঘর্ষে আহত ব্যক্তিরা হলেন নাউড়ী গ্রামের জাফর মাস্টারের ছেলে ফয়সাল (২০), আবুল বাশারের ছেলে আরমান হোসেন (১৮), দ্বীন মোহাম্মদের ছেলে মনির (৪৫), জাহাঙ্গীর আলমের ছেলে মো. জিসান (২০), সহিদ উল্যার ছেলে শাহাদাত হোসেন (১৯) ও আজিজ উল্যার ছেলে মো. মানিক (১৬) ।
পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, শুক্রবার বিকেলে উপজেলার ৯ নম্বর দেওটি ইউনিয়নের আমিরাবাদ স্কুল মাঠে নাউড়ী ও খিলপাড়া গ্রামের মধ্যে প্রীতি ফুটবল ম্যাচ অনুষ্ঠিত হয় । খেলাকে কেন্দ্র করে আমিরাবাদের কিছু ছেলের সঙ্গে নাউড়ী গ্রামের কয়েকজনের কথা-কাটাকাটি হয়। এর জের ধরে শুক্রবার রাত সাড়ে আটটার দিকে আমিরাবাদ গ্রামের অজ্ঞাতনামা ১২ থেকে ১৫ জন অস্ত্রধারী নাউড়ী গ্রামের তালতলা বাজারে হামলা চালায় । হামলাকারীরা নাউড়ী গ্রামের ছেলেদের দেখে ধাওয়া দিলে উভয়পক্ষের মধ্যে পাল্টাপাল্টি ধাওয়া এবং সংঘর্ষ ও গোলাগুলির ঘটনা ঘটে । এ সময় ছয়জন আহত হন। স্থানীয় লোকজন আহত ব্যক্তিদের উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান । সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসকের পরামর্শে আহত ফয়সাল, আরমান, জিসান ও মানিককে নোয়াখালীর ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয় ।
নোয়াখালীর পুলিশ সুপার (এসপি) মো. শহীদুল ইসলাম ফুটবল খেলা নিয়ে সোনাইমুড়ী উপজেলায় দুই গ্রামের ছেলেদের মধ্যে পাল্টাপাল্টি ধাওয়া ও গোলাগুলির ঘটনা নিশ্চিত করেন। তিনি বলেন, খবর পেয়ে তাৎক্ষণিক পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে । এ ঘটনায় অভিযুক্ত ব্যক্তিদের গ্রেপ্তারে পুলিশের অভিযান অব্যাহত আছে ।

Please follow and like us:

এরকম আরো সংবাদ