ডাক্তারের অবহেলায় নোয়াখালীতে রুগির মৃত্যু

দৈনিক নোয়াখালীবার্তা | ২৪ এপ্রিল, ২০২২ | ১৫:১৬ অপরাহ্ণ |আপডেট: ২৪ এপ্রিল, ২০২২ | ১৫:১৬

হাতিয়া প্রতিনিধি: নোয়াখালীর হাতিয়ায় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে বুকে ব্যাথা নিয়ে আসেন হাসপাতালের জরুরি বিভাগে ।জরুরি বিভাগের রুমটি খোলা ছিল ঠিকই ।সেখানে ছিল না কোনো ডাক্তার, পিয়ন কিংবা হাসপাতালের অন্য কেউ। প্রায় দুই ঘণ্টা জরুরি বিভাগের মেঝেতে পড়ে চিৎকার করতে করতে প্রাণ যায় সেই রোগীর ।এসময় স্বজনরা চারদিকে ছোটাছুুটি করেও কোন চিকিৎসকের দেখা পায়নি ।
রোববার (২৪ এপ্রিল) সকালে এই ঘটনাটি ঘটে নোয়াখালীর হাতিয়ায় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ।মৃত্যু হওয়া রোগীর নাম সালা উদ্দিন (৫৫)। সে উপজেলার তমরদ্দি ইউনিয়নের পূর্ব ক্ষিরোদিয়া গ্রামের মৃত মোজাফ্ফর আহাম্মদের ছেলে ।
এই ঘটনায় জেলা সিভিল সার্জন ডাক্তার মাসুম ইফতেখার তাৎক্ষনিক জরুরি বিভাগে দায়িত্ব পালন করা তিন জনকে শাস্তিমূলক হিসেবে ভাসানচরে বদলি করেন ।এছাড়া লিখিতভাবে এই ঘটনায় জবাব চেয়ে চিঠি দেওয়া হয়েছে ।
মৃত ব্যক্তির ছেলে মো. সোহেল জানান, ভোর রাতের দিকে তার পিতার বুকে প্রচন্ড ব্যাথা দেখা দেয় ।সকালে তাকে নিয়ে আসেন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ।কিন্তু জরুরি বিভাগে ছিলেন না কোনো ডাক্তার, নার্স বা অন্য কেউ ।এদিকে তার পিতার ব্যাথা আরও বেড়ে যায়। প্রায় দুই ঘণ্টা জরুরি বিভাগের মেঝেতে পড়ে চিৎকার করতে করতে প্রাণ যায় তার বাবার। মৃত্যুর ১০ মিনিট পর ডাক্তার এসে উপস্থিত হন জরুরি বিভাগে ।
সোহেল আর ও অভিযোগ করে বলেন, জরুরি বিভাগে ছিল না কোনো মোবাইল নম্বর ।এসময় কারা দায়িত্ব পালন করছেন তা উল্লেখ ছিল না কোনো জায়গায় ।
এদিকে ডাক্তারের অবহেলায় রোগীর মৃত্যু ঘটনাটি ছড়িয়ে পড়লে টনক নড়ে প্রশাসনের ।প্রথমে অভিযুক্ত সবাইকে কারণ দর্শানো নোটিশ দেওয়া হয় ।পরে তিনজনকে শাস্তিমূলক ভাসানচরে বদলি করা হয় ।এ ঘটনায় তিন সদস্য বিশিষ্ট একটি কমিটি করে ৫ কর্মদিবসের মধ্যে প্রতিবেদন জমা দেওয়ার জন্য নির্দেশ দেওয়া হয়েছে ।এই ঘটনায় ভাসানচরে শাস্তিমূলক বদলি করা হয়েছে হাতিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের সহকারী সার্জন ডাক্তার দীপ্ত চন্দ্রকুরী, উপ-সহকারী মেডিকেল অফিসার ইফতিয়ার উদ্দিন ও পরিচ্চন্নকর্মী আশ্রাফ আলী কে ।
এ ব্যাপারে হাতিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডাক্তার নাজিম উদ্দিন বলেন, অভিযুক্তদের ব্যাপারে তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে । আজই তাদেরকে ভাসানচরে বদলি করা হয়েছে ।তদন্তক প্রতিবেদনে দোষী প্রমাণিত হলে আরও বড় ধরনের শাস্তি দেওয়া হতে পারে ।

Please follow and like us:

এরকম আরো সংবাদ