নোয়াখালী-লাকসাম মহাসড়কে মাইক্রোবাস নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে শিক্ষকসহ ২ নিহত

দৈনিক নোয়াখালীবার্তা | ৭ জুন, ২০২২ | ১৩:১৫ অপরাহ্ণ |আপডেট: ৭ জুন, ২০২২ | ১৩:১৫

ষ্টাফ রিপোর্টার: নোয়াখালী-লাকসাম মহাসড়কে মাইক্রো নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে হোটেলের সাথে ধাক্কা খেয়ে জামাল উদ্দিন (৫২) নামে শিক্ষক ও হোটেল কর্মচারিসহ দুইজন নিহত হয়েছে এবং আহত হয়েছে একই বিদ্যালয়ের বেগমগঞ্জ উপজেলার কে.বি ইউনিয়ন উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ইসমাইল হোসেন। নিহত জামাল উদ্দিন বেগমগঞ্জ উপজেলার কে.বি ইউনিয়ন উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক। অন্যদিকে, হাসপাতালে নেয়ার পথে হোটেলের কর্মচারি জাকির হোসেন (৫০) প্রাণ হারায়। তিনি পোলাইয়া গ্রামের চান মিয়ার ছেলে। ঘটনাটি ঘটেছে মঙ্গলবার সকালে নোয়াখালী-লাকসাম মহাসড়কে পলাইয়া নামক স্থানে।এদিকে হায়ওযে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে দাবিতে পরিবারের নিকট লাশ হস্তন্তর করেছে। এদিকে প্রধান শিক্ষক ইসমাইল হোসেন কে লাকসাম জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করে পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা পাঠানো হয়েছে
বেগমগঞ্জ উপজেলার কে.বি ইউনিয়ন উচ্চ বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সদস্য হারুনুর রশিদ সত্যতা স্বীকার করে বলেন, মঙ্গলবার সকালে প্রধান শিক্ষক ইসমাইল হোসেন ও সহকারী শিক্ষক জামাল উদ্দিন স্কুলের অফিসের কাজে কুমিল্লা শিক্ষা বোর্ডে যাওয়ার পথে নোয়াখালী-লাকসাম মহাসড়কে মাইক্রোটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে এঘটনা ঘটে, পরে স্থানীয়রা উদ্ধার করে লাকসাম জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি জন্য নিয়ে গেলে জামালকে ডাক্তার মৃত ঘোষণা করেন। নিহত শিক্ষক জামাল উদ্দিন বেগমগঞ্জ উপজেলার জিরতলী ইউনিয়নের বড় হোসেনপুর গ্রমের আখন্দ বাড়ির মৃত হারিছ মিয়ার ছেলে।
এ ব্যাপারে লাকসাম হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা কাইয়ুম উদ্দিন চৌধুরী ঘটনার সত্যতা স্বীকার কের বলেন, নেয়াখালি থেকে বিদ্যালয়ের কাজে কুমিল্লা বোর্ডে যাচ্ছিলেন কয়েকজন শিক্ষক। তাদের বহনকারী হাইস মাইক্রোবাসটি (ঢাকা-মেট্টো-চ-১৩-১৯১২) পোলাইয়া নামক স্থানে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে রাস্তার পাশে হোটেলে ঢুকে পড়ে। এতে ঘটনাস্থলে শিক্ষক জামাল উদ্দিন (৫২) নিহত হন। পুলিশ লাশ উদ্ধার করে নিহত পরিবারের দাবিতে পরিবারের নিকট লাশ হস্তন্তর করেছে।

Please follow and like us:

এরকম আরো সংবাদ